• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০২:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে ইসকনের উল্টো রথযাত্রা উৎসব ৬ দফা দাবিতে পার্বতীপুরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন ৮ কোটি টাকা আত্নসাতের মামলায় মাহমুদ মেশিনারির মালিক ও সৌরভ জেল হাজতে তিন হাজার বাংলাদেশি কর্মী নেবে ইইউভুক্ত চার দেশ : পররাষ্ট্রমন্ত্রী খুলনায় দাফনের সাড়ে চার মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন কেন্দ্রীয় কৃষকলী‌গের সাংস্কৃ‌তিক সম্পাদক হালিমা রহমান ব‌হিস্কার রাণীশংকৈল সড়ক নির্মাণ কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ সড়কে পুলিশী হয়রানি বন্ধের দাবীতে খুলনায় শ্রমিকদের কর্মবিরতি শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রীর অনুষ্ঠানসহ ডিসি’র সকল কার্যক্রম বর্জন খুলনা টিভি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি বাবুল ও সাধারণ সম্পাদক অভিজিৎ

স্বামী হত্যার বিচার চাওয়ায় হামলার শিকার স্ত্রী; প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

Reporter Name / ১৫৩ Time View
Update : শনিবার, ৮ জুন, ২০২৪

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় শাকিল হত্যা মামলায় নিহতের স্ত্রী বাদী হতে চাওয়ায় তাঁর উপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা ও মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এরই প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভূক্তভোগী ওই নারী ও তার বাবা আবুল কাশেম।

শনিবার (৮জুন) দুুপুরে শহরের টাটকা হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্টে ভূক্তভোগী ওই নারীর পক্ষে তাঁর বাবা আবুল কাশেম সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় হলদিবাড়ি হাটে মৎস্যজীবিলীগ নেতা শাকিলের উপর হামলা চালায় স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। এ সময় গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতাল এবং পরে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাকিল মারা যান।

সে ঘটনায় শাকিলের ভাই বাদি হয়ে মারামারির মামলা দায়ের করেন। এবং সেই মামলা পরবর্তীতে হত্যা মামলায় রুপ নেয়। সে মামলায় পুলিশ ভূল তথ্য উপস্থাপন করে চার্জসীট দাখিল করে। পরে নিহত শাকিলের স্ত্রী চার্জসীটের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজি প্রদান করে। সেই মামলায় আসামীরা খালাস পাওয়ার সুযোগ থাকায় ২০২৪ সালের ২০ মে নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় নিহতের ভাই সাঈদ মামলার আসামীরা শাকিলের হত্যাকারিদের যোগসাজসে নিহতের স্ত্রী কাকলীর উপর হামলা চালায়। পুলিশের সহযোগিতা চেয়েও কাকলী তাদের কাছ থেকে রক্ষা পায়নি। পরে নির্যাতনের মাত্রা আরো বেড়ে যায়। এ ঘটনায় চলতি মাসের ৬ জুন কাকলীর বাবা বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনার পর থেকে কাকলীকে তার বাড়িতে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। তাকে বার বার হত্যা ও গুমের হুমকি দিয়ে আসছে।

সংবাদ সম্মেলনে ভূক্তভোগী কাকলী আরো বলেন, আমার স্বামী শাকিলকে হত্যার করেও ক্ষান্ত হয়নি। তারা আমাকে ও আমার সন্তানকে মেরে ফেলতে চায়। আমার শিশু সন্তান নিজ বাসায় থাকতে পারছে না এবং স্কুলে যেতে পারছে না। বর্তমানে আতঙ্কে দিনাতিপাত করছি এবং নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি।

কাকলীর বাবা আবুল কাশেম বলেন, আমি ও আমার মেয়েসহ পরিবারের সকলে অসহায় হয়ে পড়েছি। আমার জামাতার হত্যার বিচার চাইতে গিয়ে হামলা ও হুমকির শিকার হচ্ছি। আমার মেয়ে ও নাতনী নিজের বাসায় পর্যন্ত যেতে পারছে না। এসব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

এ সময় জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ০৩/০৯/২০২২ ইং তারিখে জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হলদি বাড়ি হাটে সন্ত্রাসীরা হত্যার উদ্দ্যেশে মাথায় গুরুত্বর আঘাত প্রাপ্ত হয়ে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাদীন অবস্থায় মারা যান মৎস্যজীবিলীগ নেতা শাকিল আহমেদ।

এ ইসলাম/টাঙ্গন টাইমস


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
https://slotbet.online/