• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৮:৪১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
অপসারণ হয়নি ঝড়ে পড়া বটগাছ, খোলা আকাশের নীচে দুই পরিবার বিষাক্ত প্রাণী থেকে বাঁচতে যে দোয়া পড়বেন আওয়ামী লীগ দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য রাজনীতি করে— আ.লীগের প্লাটিনাম জুবিলিতে এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী বিএনপি স্বাধীনতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তির তোষণ না করলে দেশ আরও এগিয়ে যেতো : পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্ত হলেন ঠাকুরগাঁও জেলা কমান্ড্যান্ট মিনহাজ আরেফিন ঠাকুরগাঁওয়ে জনপ্রতিনিধি ও নাগরিকদের মধ্যে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত মদিনায় কমিউনিটি সভা: সৌদি প্রবাসীদেরকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অভিনন্দন, দিকনির্দেশনা ঠাকুরগাঁওয়ে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী জাহাঙ্গীর আলম হাজতে কেন শহিদুলের বিরুদ্ধে দুদকে মামলা ? ঠাকুরগাঁওয়ে পাটচাষি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুদানের অর্থ ব্যায়ে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ

Reporter Name / ২২৬ Time View
Update : রবিবার, ১২ নভেম্বর, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঠাকুরগাঁও : পারফরমেন্স বেজড গ্রান্টস ফর সেকেন্ডারি ইন্সটিটিউশনস স্কীমের আওতায় বিতরণকৃত স্কুল-মাদ্রাসা-কলেজে ব্যবস্থাপনা জবাবদিহি অনুদানের অর্থ ব্যায়ে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটের তথ্য মতে, পারফরমেন্স বেজড গ্রান্টস ফর সেকেন্ডারি ইন্সটিটিউশনস স্কীমের আওতায় বিতরণকৃত স্কুল-মাদ্রাসা-কলেজে ব্যবস্থাপনা জবাবদিহি অনুদানের জন্য ঠাকুরগাঁও জেলায় ৬০টি প্রতিষ্ঠানে ৫ লাখ টাকা হারে মোট ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ আসে। বরাদ্দকৃত অর্থ শিক্ষকদের জন্য প্রণোদনা বাবদ ১ লাখ টাকা, বইপত্র, লাইব্রেরি, শিক্ষা উপকরণ এবং গবেষণাগার সরঞ্জাম বাবদ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা, ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষ করে ছাত্রীদের জন্য অবকাঠামো, বিশুদ্ধ পানি, শৌচাগার, কমনরুম উন্নয়ন বাবদ ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা, সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের সহায়তা বাবদ ৭৫ হাজার টাকা এবং প্রতিবন্ধী বা বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের ফ্যাসিলিটি উন্নয়ন বাবদ ৫০ হাজার টাকা ব্যায় করা কথা।

সম্প্রতি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বালাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, বালাপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সিএম আইয়ুব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ কয়েকটি বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় ভিন্ন চিত্র। নির্ধারিত খাত অনুযায়ী ব্যায় করার কথা থাকলেও কিন্তু প্রধান শিক্ষক ব্যায় না করেই তার নিজের মতো করে বিল-ভাউচার জমা দিয়েছেন। ক্রয়কৃত মালামাল দেখতে চাইলে কোন প্রধান শিক্ষকই তা দেখাতে পারেননি।

এব্যাপারে বালাপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মনোয়ার হোসেন সত্যতা শিকার করে বলেন বইপত্র বাবদ ১২ হাজার টাকার মতো করা হয়েছে। বাকিটা অন্য কাজে ব্যায় করা হয়েছে বলে জানান। বালাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সারওয়ার হোসেনের কাছে ক্রয়কৃত মালামাল দেখতে চাইলে তিনি দেখাতে পারেননি। লাইব্রেরিতে বই ক্রয়ের কথা বলা হলেও লাইব্রেরি বন্ধ থাকে এবং তার কাছে চাবি নেই বলে জানান। প্রতিবন্ধী বা বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের ফ্যাসিলিটি উন্নয়ন বাবদ ব্যায়ের উপকরণ দেখতে চাইলে বলেন ক্রয় করা হয়েছে কিন্তু এখনো আনা হয়নি।

ঠাকুরগাঁও জেলা শিক্ষা অফিসার মো : আখতার হোসেন বলেন নির্ধারিত খাত অনুযায়ী ব্যায় করার কথা, এর বাইরে যদি কেউ খরচ করে থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
https://slotbet.online/