• শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

জমে উঠেছে ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ নির্বাচন

Reporter Name / ৯২ Time View
Update : বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : অবশেষে জমে উঠেছে ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ নির্বাচন। ইতিমধ্যে শুন্য পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করতে ২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দী ২  প্রার্থীর প্রতীকসহ প্রার্থীতা প্রকাশ করে।

ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি  সাবেক পৌরসভার মেয়র এস এম এ মঈন এবং  জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আব্দুল মজিদ আপেল ।

মনোয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের দিন গত বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রয়ারি) ঋণখেলাপির দায়ে এস এম এ মঈন এর মনোনয়ন বাতিল করেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মঞ্জুরুল হাসান।

আরও পড়ুন : জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র দাখিল

পরে এস এম এ মঈন উচ্চ আদালতের আশ্রয় নেন। উচ্চ আদালত তার মনোনয়ন বৈধ বলে আদেশ দেয়। উচ্চ আদালেতের আদেশের কপি জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার বরাবরে গত মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) জেলা রিটার্নিং অফিস তাকে প্রতীক বরাদ্দ দেয়।

বরাদ্দকৃত প্রতীকের মধ্যে এস এম এ মঈন পেয়েছেন মটরসাইকেল মার্কা এবং আব্দুল মজিদ আপেল পেয়েছেন আনারস মার্কা।

প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা মাঠে নেমেছেন এবং ভোটাদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন। এছাড়াও তারা দলীয় সমর্থন পেতে দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন।

কোথাও কোথাও সভা, সমাবেশ, বৈঠক ও সেমিনারে অংশগ্রহন করছেন।

ভোটাররা মনে করছেন শেষ পর্যন্ত নির্বাচনটি জমে উঠেছে। কে হবেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তা নিয়েই চলছে জল্পনা আর কল্পনা।

উল্লেখ্য, গত ২০২৩ সালের ২৪ অক্টোবর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুহ: সাদেক কুরাইশী মৃত্যুবরণ করলে পদটি শুন্য হয়ে যায়।

ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ৭৫৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৫৭৮টি এবং নারী ভোটার সংখ্যা ১৮০ টি।

আগামী ৯ মার্চ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
https://slotbet.online/